ব্লু মুনে চড়ে চাঁদে যাবে মানুষ!

এবার বেসরকারি উদ্যোগে বসবাসের জন্য চাঁদে মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনার বাস্তবতা ঘটাটে যাচ্ছে অনলাইন শপিং প্লাটফর্ম অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাত জেফ বেজোস। তিনি বলেন, এটা অনেক আগেই জানানো হয়েছিল কিন্তু এবার মানুষ পাঠানোর মহাকাশযান জনসম্মুখে প্রদর্শন করা হল।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসির ওয়াশিংটন কনভেনশন সেন্টারে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ব্লু মুন’ নামের চন্দ্রযানটি জনসম্মুখে আনেন বেজোস।

তিনি বলেন, ২০২৪ সালের মধ্যেই চাঁদে বসবাসের জন্য মানুষ পাঠাতে সক্ষম হবেন তারা। চাঁদের দক্ষিণ পৃষ্ঠে মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে। যেখানে আছে বরফের আচ্ছাদন। বরফখণ্ড কেটে পানি বের করে তা মানুষের বসবাস উপযোগী করার পরিকল্পনার কথা জানান বিশ্বের অন্যতম এই শীর্ষ ধনী। চন্দ্রাভিযানের এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে ব্লু অরিজিন নামে একটি প্রতিষ্ঠান। যার মালিকানায়ও রয়েছেন বেজোস।

বেজোস আরও জানান, ‘ব্লু মুন’ নামের এ মহাকাশযানে করে মানুষ চাঁদের পৃষ্ঠে নামবে। এ ছাড়া বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি, স্যাটেলাইট ও রোভার বহন করবে যানটি। অনুষ্ঠানে বিই-৭ নামে একটি রকেট ইঞ্জিনও প্রদর্শন করেন বেজোস, যেটি চন্দ্রপৃষ্ঠে পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, বেজোস জানান, ২০১৬ সালে চাঁদে মানুষ পাঠানোর যান নির্মাণের কার্যক্রম শুরু করে ব্লু অরিজিন। অ্যামাজনের শেয়ার বিক্রি করে এই প্রকল্পে অর্থ বিনিয়োগ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *