আগামী বিপিএল কুমিল্লা স্টেডিয়ামে!

প্রায় ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিকায়ন করা হয়েছে কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ স্টেডিয়াম। ফলে পুরনো জরাজীর্নতা কেটে স্টেডিয়ামটিতে ফিরেছে নান্দনিক রূপ।
২০ হাজারের অধিক দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এ স্টেডিয়ামটি এখন পুরোপুরি প্রস্তুত। স্টেডিয়ামটি আধুনিকায়নের উদ্যোগ নেন স্থানীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। পুরো স্টেডিয়ামকে ভেঙ্গে নতুন করে গড়া হয় এর অবকাঠামো।

এখন অপেক্ষা উদ্বোধনের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শীঘ্রই নতুন রূপে ফেরা দৃষ্টিনন্দন এ স্টেডিয়ামটি উদ্বোধন করবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন কুমিল্লা সদর আসনের এমপি ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার।

এ বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে এমপি হাজী বাহার বলেন, পুরো স্টেডিয়ামকে পরিবর্তন করে ফেলা হয়েছে। এ স্টেডিয়ামের নাম ছিল একসময় কুমিল্লা স্টেডিয়াম। পরবর্তীতে আমাদের এ কুমিল্লার গর্বিত সন্তান শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ করেছি।

এটা আমাদের প্রিয় নেত্রী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ হাসিনার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন কুমিল্লা টাউন হলে সভা করতে এসেছিলেন তখন এটার ধীরেন্দ্রনাত দত্তের নামে যে স্টেডিয়াম দিয়েছি সেই উদ্বোধনই তিনি করেছেন। সে সময় থেকে আমরা কুমিল্লা স্টেডিয়ামকে ভেঙ্গে সম্পূর্ণ নতুন স্টেডিয়াম করার পরিকল্পনা গ্রহণ করি। আধুনিকায়ন শেষে

এমপি বাহার বলেন, আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনা একটা আধুনিক স্টেডিয়াম করার জন্য আমাদের সে অর্থ দিয়ে সহায়তা করেছেন। এ স্টেডিয়াম এখন আগের মত নাই, এই স্টেডিয়াম এখন একটি নতুন স্টেডিয়াম। মাটি ছাড়া আর বাকি সবই নতুন। এমনকি মাটিটাকেও আমরা পরিবর্তন করেছি।

মাটির সংস্কার হয়েছে তা বলা যাবে। এখানে আমরা মাটি ফেলেছি, বালু ফেলেছি যেনো সবসময় কাঁদা জমে না থাকে। এরপর আমরা টার্ফিং (ঘাস) করেছি যাতে করে এখানে সুন্দর পরিবেশ খেলোয়াড়রা খেলতে পারে।

এবং এখানে আমরা সামনের দিকে ক্রিকেট খেলোয়াড় তৈরি করার জন্য বেশকিছু পিচ এখানে আমরা তৈরি করবো। যাতে করে আমার কুমিল্লা থেকে বাংলাদেশের সুনাম বয়ে আনতে পারে।

স্টেডিয়াম ঘুরে দেখা গেছে, আধুনিকায়ন হওয়া স্টেডিয়ামটিতে রাখা হয়েছে আধুনিক সুযোগ সুবিধা। তৈরি করা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন সুইমিং পুল। এতে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৩০ কোটি টাকা। ২০ হাজারের অধিক দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এ স্টেডিয়ামের আধুনিকায়নে একদিকে যেমন উৎফুল্ল কুমিল্লার ক্রীড়াঙ্গনের মানুষ।

তাদের প্রত্যাশা আগামী বিপিএলে কুমিল্লা দলের খেলা কুমিল্লা স্টেডিয়ামেই বসে দেখবে। এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চেয়ারপার্সন নাফিসা কামালের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সংস্কার ও আধুনিকায়নের ফলে নতুন আঙ্গিকে গড়ে উঠা শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে জাতীয় পর্যায়ের ও মানের যে কোনো খেলার আয়োজন সম্ভব বলে জানিয়েছেন ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তারা। ফলে পর্যাপ্ত অনুশীলন ও ম্যাচ খেলার সুযোগ মিলবে স্থানীয় খেলোয়াড়দের। কুমিল্লা থেকেই বেড়ে উঠবে নতুন নতুন খেলোয়াড়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *