রাশিয়ার আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা

ইবি প্রতিনিধি: রাশিয়ায় ফিসু ওয়াল্ড কনফারেন্স অন ইনোভেশন এডুকেশন এন্ড স্পোর্টস শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক আসাদুর রহমান।

গত ৩ থেকে ১১ মার্চ রাশিয়ার ক্রাইনোস ইয়ার্স্কে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ প্রতিবেদকের সাথে একান্ত আলাপকালে রাশিয়া সম্মেলনের অভিজ্ঞতার কথা জানালেন আসাদুর রহমান।

তিনি জানান, ফিসু হচ্ছে ফেডারেশন অব ইন্টারন্যাশনাল দি ইউনিভার্সিটি স্পোর্টস অ্যাসোসিয়েশন। এ সম্মেলনে বিশ্বের ১০০টির অধিক দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করেন। সেখানে ৬ সেশনের একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের একটি সেশনে তিনি মুল বক্তা ছিলেন। তিনি ভলিবল ও হ্যান্ডবল খেলোয়ারদের মনন নিয়ে গবেষণা করেন। এসব খেলোয়ারদের কি কি মানসিক উন্নয়ন ঘটালে খেলার মানোন্নয়ন হবে সে বিষয়ে বিশদ গবেষণা করেন তিনি। এ সংক্রান্ত প্রবন্ধ তিনি সেই আন্তর্জাতিক সেমিনারে উপস্থাপন করেন। এছাড়াও এ খেলার সমস্যা ও সম্ভাবনা ওই প্রবন্ধে স্থান পাই।

আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে তিনিই একমাত্র বাংলাদেশি প্রতিনিধি হওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. হারুন উর রশিদ আসকারী। তিনি বলেন, ‘এখানে শিক্ষা ও গবেষণার পাশাপাশি সংস্কৃতি এবং খেলাধুলাকেও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যেতে চাই। এ ধরনের আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে যোগদানের ফলে স্পোর্টস বিভাগের মান অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে| এটি উদাহরণ হিসেবে নিলে অন্যরাও অনেক উৎসাহিত হবে।’

ব্যক্তি জীবনে ফুটবল খেলোয়াড় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম তোহা বলেন, আসাদ ‘বাংলাদেশের একজন উল্লেখযোগ্য অ্যাথলেট। তিনি ওয়াল্ড ইউনিভার্সিটি গেমসেও যোগদান করেছে। তার আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগদান আমাদের জন্য গর্বের। তার উচিত হবে তার গবেষণা এবং অভিজ্ঞতা আমাদের খেলোয়ারদের সাথে শেয়ার করা। যার মাধ্যমে আমাদের খেলোয়াড়রাও উপকৃত হবে।’

আসাদুর রহমান প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, বাংলাদেশ থেকে এমন বড় কনফারেন্সে প্রতিনিধিত্ব করায় নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। এর মধ্যে দিয়ে সারা দেশের ক্রীড়াঙ্গনে সমস্যা সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে বলে আশা করছি। আসন্ন সুইজারল্যান্ড কনফারেন্সে বাংলাদেশের কয়েকজন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তার মধ্যে আমিও রয়েছি। সেখানেও বাংলাদেশের ক্রীড়া জগতকে নিয়ে গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করব। যার মাধ্যমে আমাদের ক্রীড়াঙ্গণ আরো সমৃদ্ধ হবে বলে আশা প্রকাশ করি।

উল্লেখ্য, আসাদুর রহমান গবেষক ও সাবেক জাতীয় ক্রীড়াবিদ। তিনি ইতোপূর্বে চীন, জাপান, কোরিয়া ও ভারতে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন। এছাড়াও জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক জার্নালে তার ২২টি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *