হাসপাতাল ফেলে চেম্বারে ‘মেডিকেল কর্মকর্তা’, ধরল সেনাবাহিনী

একুশের বার্তা ডেস্ক- হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় হাসপাতালের দায়িত্ব ফেলে প্রাইভেট চেম্বারে রোগী দেখা ও নামের পাশে ‘ডাক্তার’ লেখার অপরাধে এক মেডিকেল কর্মকর্তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পুরানবাজারে বনজ কুমার হালদার নামের ওই ডাক্তারের প্রাইভেট চেম্বারে গিয়ে এ জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার।

এর আগে সিলেট সেনানিবাসের ভারপ্রাপ্ত উপ-অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ আরিফ-উজ-জামানের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর একটি দল পুরানবাজারে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান চালান। এ সময় বনজ কুমার হালদারের চেম্বারে জনসমাগম দেখে তার সঙ্গে কথা বলেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। পরে বনজ কুমার সেনাবাহিনীকে জানান, তিনি একজন পল্লী চিকিৎসক।

অথচ সাইনবোর্ড ও রোগীর ব্যবস্থাপত্রে নিজের নামের আগে ডাক্তার লিখে রেখেছেন তিনি।

মেজর মোহাম্মদ আরিফ-উজ-জামান কথা বলে জানতে পারেন, বনজ কুমার চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার। পরে বিষয়টি প্রশাসনকে জানান মেজর মোহাম্মদ আরিফ-উজ-জামান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার বলেন, ‘বনজ কুমার হালদার কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার। তিনি হাসপাতালের দায়িত্ব ফেলে প্রাইভেট চেম্বারে রোগী দেখছেন। একই সঙ্গে নামের পাশে ডাক্তার লিখে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছেন। এ জন্য তাকে জরিমানা করা হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *