মাহমুদুল্লাহ’র ফিনিশিংয়ে চট্টগ্রামের বড় সংগ্রহ

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে মিরপুরে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা ভালো করেন চট্টগ্রামের দুই ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকি এবং ক্রিস গেইল। এই দুই ব্যাটসম্যান ৩৮ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন। কিন্তু ইনিংসের সাত নম্বর ওভারের দ্বিতীয় বলে জুনায়েদকে ফরহাদ রেজার হাতে ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে পাঠান রাজশাহীর পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। এক ছক্কা এবং দুই চারের সাহায্যে ২৩ বলে ২৩ রান করে বিদায় নেন জুনায়েদ।

ইনিংসের দশম ওভারে বোলিংয়ে এসে ক্যারিবিয়ান হার্ডহিটার ক্রিস গেইলকে আন্দ্রে রাসেলের হাতে ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে পাঠান আফিফ হোসেন। ২১ বলে ২৩ রান করে আউট হন তিনি। দলীয় ৬৯ রানের মাথায় তাইজুল ইসলামের বলে আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইমরুল কায়েস। ১৮ বলে ১৯ রান করে আউট হন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। এরপর মাঠে ম্যাচের হাল ধরেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ এবং উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান সোহান। মাহমুদুল্লাহ ও সোহানের হাত ধরে রানের গতি কিছুটা বাড়লেও ১৭ বলে ৩০ রানের ভালো একটি ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরেন সোহান। পরে মাহমুদুল্লাহর দুর্দান্ত ফিনিশিংয়ে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৫৫ রানের বড় সংগ্রহ পায় চট্টগ্রাম।

এই ম্যাচে তিনটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে মাহমুদউল্লাহর চট্টগ্রাম। লেন্ডন সিমন্সের পরিবর্তে আজ খেলছেন রায়াদ এমরিট। অপরদিকে কেসরিক উইলিয়ামসের বদলে দলে এসেছেন ইংল্যান্ডের তারকা পেসার লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট এবং মুক্তার আলীর পরিবর্তে খেলছেন জুনায়েদ সিদ্দিকি। চট্টগ্রামের প্রতিপক্ষ রাজশাহী দলেও এসেছে পরিবর্তন। ইরফান শুক্কুরের পরিবর্তে আজ একাদশে সুযোগ পেয়েছেন পেসার আবু জায়েদ রাহি। ১১ ম্যাচে আটটি জয় নিয়ে ইতোমধ্যেই পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে আছে চট্টগ্রাম। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে না জিতলে শীর্ষস্থান ধরে রাখাটা কিছুটা চ্যালেঞ্জিং তাদের জন্য। তাদের প্রতিপক্ষ রাজশাহী ১১ ম্যাচে সাতটি জয় নিয়ে পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে আছে। সমান জয় নিয়ে নেট রান রেটে এগিয়ে থাকায় পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানে আছে মাশরাফি বিন মুর্তজার ঢাকা প্লাটুন। নেট রান রেটে ঢাকা ও রাজশাহী থেকে এগিয়ে থাকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে খুলনা টাইগার্স।

রাজশাহী রয়্যালস একাদশ: লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), আফিফ হোসেন, শোয়েব মালিক, রবি বোপারা, আন্দ্রে রাসেল (অধিনায়ক), অলক কাপালি, ফরহাদ রেজা, তাইজুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম রাব্বি, মোহাম্মদ ইরফান, আবু জায়েদ রাহি।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স একাদশ: ক্রিস গেইল, জুনায়েদ সিদ্দিকি, ইমরুল কায়েস, চ্যাডউইক ওয়ালটন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট, রায়াদ এমরিট, রুবেল হোসেন, নাসুম আহমেদ, জিয়াউর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *