‘অটিজম মানে মানসিক প্রতিবন্ধকতা নয়’

অটিজম মানে মানসিক প্রতিবন্ধকতা নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। ভারতের নিউটাউনে অ্যামিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে অটিজম সংক্রান্ত একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে গবেষকেরা এ কথা বলেন।

বেঙ্গালুরুর ‘নিমহ্যান্স’-এর মনোরোগ বিশেষজ্ঞ জয়রঞ্জন রামের কথায়, ‘চিকিৎসার ক্ষেত্রে কীভাবে পদক্ষেপ নিলে শিশুদের এই ভয়ংকর রোগের হাত থেকে কিছুটা রেহাই দেওয়া সম্ভব হতে পারে, সেটাও এখন অনেকটা বুঝতে পারবেন ডাক্তাররা। তাতে অযথা হয়রানির হাত থেকে রেহাই পাবেন অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের পরিবার। আমরা বলতে চাই, এই সমস্যা কোনো মানসিক প্রতিবন্ধকতা নয়।’

সম্মেলনে যেমন এসেছেন অটিজমে আক্রান্ত শিশুদের মা-বাবা, তেমনই এসেছেন চিকিৎসক, মনোবিদ, মনস্তাত্ত্বিক এমনকি স্নায়ুবিজ্ঞানীরাও। ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তো বটেই, বিদেশ থেকেও।

অটিজম ভয়ংকর একটি রোগ। এই রোগের প্রাথমিক লক্ষণ শিশু কথা বলতে শেখে না। বললেও জড়িয়ে যায়। অনেক সময় কথা বলতে গেলে মুখ বেঁকে যায়। গলার স্বরও অন্য রকম হয়। দৃষ্টি ঝাপসা হয়। কারও সঙ্গে মিশতে শেখে না শিশু। এমনকি মা, বাবার থেকেও দূরে থাকতে চায়। চট করে রেগে যায়। জন্মের মাস ছয়েক পর থেকেই শুরু হয় এই রোগের আক্রমণ।

শুধু ভারতেই অটিজমে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা অন্তত ১ কোটি। প্রতি ৬৮টি শিশুর মধ্যে একটিতে ধরা পড়ে এই রোগ। শিশুরা মোটামুটি ৩ বছর বয়সের আগে তেমনভাবে কথা বলতে শেখে না বলে এই রোগ ধরাই পড়ে অনেক দেরিতে।

রোগীদের প্রথমে মানসিক প্রতিবন্ধী ভাবা হয়। অধিকাংশ রোগীরই চিকিৎসা হয় না। হলেও ভুল চিকিৎসা হয়।

ইন্ডিয়া অটিজম সেন্টারের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ট্রাস্টি সুরেশ সোমানি জানালেন, অটিজম নিয়ে গবেষণা কোন দিক দিয়ে কীভাবে এগোচ্ছে, তা চিকিৎসক, মনোবিদ ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের জানাতে, বোঝাতেই এই আন্তর্জাতিক সম্মেলন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *