পুলিশ সেজে পাহাড়পুরে বসে টাকা হাতিয়ে নিতেন রিফাত

একুশের বার্তা ডেস্ক- ফেসবুকে পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) পরিচয় দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করার নামে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টার।

দিনাজপুর জেলার পাহাড়পুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। আজ রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল।

গ্রেপ্তারকৃতকে জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে সিআইডি জানায়, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম রিফাত আহমেদ। সে বিগত কয়েক মাস ধরে প্রায় ২০-৩০ জনের কাছ থেকে কখনো পুলিশের এডিসি আবার কখনো ডিআইজি পরিচয় দিয়ে রকেট অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে অর্থ গ্রহণ করে আসছিল।

পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল জানান, রিফাত নিজেকে ফেসবুকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ডেপুটি কমিশনার এবং সিআইডির অফিসার পরিচয় দেয়। বিষয়টি সাইবার মনিটরিং টিম পর্যবেক্ষণে রেখে তাকে শনাক্ত করার চেষ্টা করছিল। এরই মধ্যে সিআইডি সাইবার পুলিশ সেন্টারের ফেসবুক পেজে বেশ কিছু ব্যক্তি রিফাতের আইডি সম্পর্কে অভিযোগ করেন। তাদের অভিযোগ, রিফাত নিজেকে পুলিশের এডিসি পরিচয় দিয়ে তাদের ফ্রিলান্সিং করার জন্য রকেট অ্যাকাউন্টে ১০ থেকে ২০ হাজার করে টাকা নিচ্ছেন।

তিনি আরও জানান, সাইবার মনিটরিং চলাকালীন দেখা যায় যে, রিফাত আহমেদ নামের ওই ফেসবুক ব্যবহারকারী তার অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল এবং কভার ছবিতে পুলিশের ছবি ব্যবহার করেছেন। পরে তার ফেসবুক আইডি ঘেঁটে দেখা যায়, তিনি বিভিন্ন সময়ে ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য তার ব্যবহৃত ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেন।

সিআইডির এই কর্মকর্তা জানান, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সাইবার মনিটরিং এবং সাইবার ইনভেস্টিগেশন টিম তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে জানতে পারে যে, দিনাজপুর জেলার পাহাড়পুর নামক স্থানে বসে রিফাত তার ফেসবুক আইডিটি পরিচালনা করছে। পরে দিনাজপুর জেলার পাহাড়পুর থেকে মো. রিফাত আহমেদকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *