ভোলায় অগ্নিকাণ্ডে ৯ দোকান পুড়ে ছাই

ভোলার দৌলতখান উপজেলায় অগ্নিকাণ্ডে নয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছেন ব্যবসায়ীরা।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে অগ্রণী ব্যাংক সংলগ্ন এলাকায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রাত সাড়ে ৩টার দিকে বাজারের অগ্রণী ব্যাংক সংলগ্ন মো. শামীমের মুদি দোকানের বিদ্যুতের মিটার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে ওই দোকান থেকে আগুনের তীব্রতা আশপাশের দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে দৌলতখান, বোরহানউদ্দিন ও ভোলাসহ ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো হচ্ছে- শামীমের মুদি দোকান, আলমের মুদি দোকান, জামাল বেড হাউজ, শুক্কুরআলীর ফলের দোকান, মোস্তফা বেডহাউজ, মাসুদ মিজির হার্ডয়্যার, মনির ষ্টোর, কামাল হোসেনের সয়ামিল, মাইদুল ষ্টোর।

জেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা (ডি.এ.ডি.) জাকির হোসেন জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট যৌথভাবে দুইঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিক থেকে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

খবর পেয়ে ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আযম মুকুল, দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিতেন্দ্র কুমার নাথ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদেরকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *