মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে কিশোরীকে গণধর্ষণ

যশোরে ১৫ বছরের এক কিশোরী অপহরণের পর গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে শহরের হুশতলা এলাকা থেকে অপহরণের পর তাকে কয়েকজন মিলে ধর্ষণ করেছে বলে দাবি করেছে ওই কিশোরী। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি।

নির্যাতনে শিকার ওই কিশোরীকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কিশোরী জানায়, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে শহরের বকচর এলাকা থেকে রিকশাযোগে সে মনিহার বাসস্ট্যান্ডে যাচ্ছিল। র‌্যাব অফিসের সামনে পৌঁছলে একটি মাইক্রোবাস এসে রিকশার গতিরোধ করে অস্ত্র ঠেকিয়ে চোখ বেঁধে তাকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে ছয় যুবক তাকে ধর্ষণ করে। এদের মধ্যে ভাগ্নে মামুন ও হৃদয়কে চিনতে পেরেছে সে।

হাসপাতালের চিকিৎসক হালিমা-তুজ জোহরা জানান, ভিকটিমের ক্ষতস্থানে সেলাই দেয়া হয়েছে। আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। রিপোর্ট আসার পর বিস্তারিত জানা যাবে।

যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ভিকটিম পরিচয় গোপন করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। পরে তার মা শনাক্ত করেছে। কিন্তু ভিকটিম মায়ের সঙ্গে মানসিক ভারসাম্যহীনের (মেন্টাল) মতো আচরণ করছে। ধর্ষণের ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পায়নি। তবে আমরা তদন্ত করছি। মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়ার পর এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *